ধূমপান ছাড়ার উপকারিতা - ধূমপান বন্ধ করার 20 মিনিট পর কি ঘটে ? What happens if quit smoking - healthshocheton

ধূমপান ছাড়ার উপকারিতা । ধূমপান ত্যাগের উপকারিতা ।


এই আর্টিকেল টি পরে আপনি যা জানতে পারবেন:

1) ধূমপান ছাড়ার উপকারিতা ।
2) ধূমপান ছাড়ার 20 মিনিট পর থেকে ১৫ বছর পর্যন্ত কি কি পরিবর্তন হয়।
3) ধূমপান ছাড়ার প্রাথমিক ধারণা।
4) ধূমপান ছাড়ার উপায়।
ধূমপান ত্যাগের উপকারীতা

ধূমপান ছাড়ার উপকারিতা
আপনি যদিও অনেকদিন যাবত ধূমপান করেন, কিন্তু আপনি যখন হঠাৎ করে ধুমপান ছেড়ে দিবেন , তখন প্রথমত আপনি খুব খারাপ ফীল করবেন । হয়তো ধূমপানের নেশা এবং নিকোটিন withdrawal আপনার সব প্লান নষ্ট করে দিবে । কিন্তু আপনার সুসাস্থ লাভের জন্য আপনাকেই শক্ত ভাবে হাল ধরতে হবে । কল্পনাও করতে পারবেন না যে কতটা পরিবর্তন হতে চলেছে আপনার সাস্থ । কারন আমাদের দেহের এতটাই ধারণ ক্ষমতা যে মাত্র 20 মিনিট পর থেকে আপনি রেজাল্ট দেখতে শুরু করবেন । হ্যা শুধুমাত্র প্রথম কয়েক সপ্তাহ যদি আপনি ধৈর্য ধরতে পারেন তাহলেই হবে । তাহলে চলুন আজ জেনে নেয়া যাক, ধুমপান বন্ধ করলে কি কি পরিবর্তন হবে আমাদের দেহে ।

ধূমপান ছাড়ার 20 মিনিট পরের উপকারিতা 

মাত্র 20 মিনিট পর আপনার blood প্রেসার এবং পালস নরমাল হতে শুরু করবে। এ সময় আপনার সাস্থের ওভারঅল কন্ডিশন আরো বেটার হতে থাকবে। হাত এবং পা তাদের নরমাল তাপমাত্রা ফিরে পাবে। 

ধুমপান ছাড়ার ৮ ঘন্টা পরের উপকারিতা 


এ সময়টিতে আপনার দেহের ভিতর থাকা কার্বন monoxide কে অর্ধেক করে ফেলবে । কার্বন monoxide সিগারেট এর ভিতর এক ধরনের কেমিকাল , যা কিনা আপনার রক্তে থাকা অক্সিজেন কে ঠেলে বের করে দেয়। এর ফলে আপনার ব্রেইন এর যে পরিমাণ অক্সিজেন দরকার তা সে পায়না। 

তাই যখনি কেমিকাল লেভেল ড্রপ হতে থাকবে, তখনি অক্সিজেন এর চলাচল নরমাল হতে থাকবে।  অন্যদিকে আপনি হয়তো এ সময়টিতে ধুমপান এর নেশা খুব অনুভব করবেন। কিন্তু এটা স্বাভাবিক । ভয়ের কিছু নেই । কারন এই feelings  টা অল্প সময়ের মধ্যেই সীমাবদ্ধ । আপনি চেষ্টা করুন যাতে করে আপনার ফীলিংস টা অন্যদিকে ঘোরে । এমন কোনো প্লেস এ যান, যেখানে আপনি চাইলেও ধুমপান করতে পারবেন না। অথবা চোওয়িং ঘাম, চকলেট এসব ট্রাই করতে পারেন।

ধূমপান ছাড়ার ১২ ঘন্টা পর


ঠিক 12 ঘন্টা পর আপনার কার্বন monoxide লেভেল আপনা আপনিই নরমাল হতে থাকবে। এ সময় আপনার হার্ট আপনাকে ধন্যবাদ জানাবে। কারণ দেহের ভিতর অক্সিজেন পাওয়ার জন্য হার্ট এর জোরে পাম্প করার প্রয়োজন হবে না।

ধূমপান ছাড়ার ২৪ ঘন্টা পর


আপনি যদি প্রতিদিন এক প্যাকেট করে সিগারেট ধূমপান করেন, তাহলে আপনার হার্ট অ্যাটাক  এর সম্ভাবনা অনেক বেশি। কিন্তু পুরো একদিন ধূমপান ছাড়া এই সম্ভাবনাকে অনেকটাই কমিয়ে দেয়।

৪৮ ঘন্টা পর


এই সময়টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ, কারন 2 দিন যদি আপনি সিগারেট ছাড়া  থাকতে পারেন, তাহলে আপনি হয়তো আরো এগিয়ে যেতে পারবেন। আপনার খাবারের প্রতি স্বাধ এবং কোনো কিছুর গ্র্যান নেয়ার ক্ষমতা আরো বৃদ্ধি পাবে।

এ সময় আপনার দেহ আপনা আপনি পরিষ্কার করতে  ব্যস্ত থাকবে। সিগারেট থেকে যত ধরনের mocus এবং junk আপনার দেহে প্রবেশ করেছে তা পরিষ্কার হতে থাকবে। এ সময়টি সবচেয়ে tough (টাফ ) কারন আপনি feel করবেন, মাথা ব্যথা, ক্ষুধার্ত, অনক্সিয়াস, dizzy ইত্যাদি । ভয়ের কিছু নেই। এটা স্বাভাবিক । আপনি আপনার প্লান এর প্রতি স্ট্রিক্ট থাকুন। এমন কোনো জায়গায় যান, যেখানে smoke করা যাবেনা। যদি কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে হেল্প পান তাহলে তাদের সাথে যোগযোগ করুন ।

আপনার যদি asthma (অ্যাজমা ) থাকে, তাহলে এ সময় খারাপ লক্ষণ দেখা যাবে। কিন্তু এই লক্ষণ বেশিক্ষণ থাকবেনা। অল্প কিছু সময়ের মধ্যেই ঘায়েব হয়ে যাবে। এ জন্য আপনার ডাক্তার এর কাছে গিয়ে দেখা করে পরামর্শ নিলে ভালো হয়।
ধূমপান ত্যাগের উপকারীতা
ধুমপান ছাড়ার উপকারিতা 

৩ দিন পর


৩ দিন পর , আপনার শ্বাস নিতে খুবই সহজ হবে। আপনার lungs (শ্বাস যন্ত্র) recover করতে শুরু করবে এবং আরো বেটার হতে থাকবে।

2 সপ্তাহ থেকে ৩ মাস 


হ্যা, ফাইনালী এ সময়টিতে আপনি অনেক কিছু পরিবর্তন করতে সক্ষম হয়েছেন। অনেক কাজ আপনি আগের তুলনায় বেশি করতে পারবেন। কারন আপনার lungs আগের চেয়ে শক্তিশালী এবং পরিস্কার। তাই আপনি ব্যায়াম করতে পারবেন আগের তুলনায় অনেক বেশি, তাও আবার বিনা ক্লান্ত হয়ে। আপনার হার্ট অ্যাটাক এর রিস্কও অনেকটা কমে গেছে। ধূমপান বন্ধ করার যে কঠিন পার্ট সেটিও আপনি অতিক্রম করেছেন।

তারপরও যদি আপনি আপনার নেশা অনুভব করেন, এটা হতেই পারে। কারন সবারই আলাদা আলাদা কিছু কারন থাকে যার কারনে সে ধূমপান করতে চায়। আপনি আপনার কারণটি খুজে বের করুন এবং সেটিকে avoid করুন। ভাবুন আপনি যেই টাকা save করছেন এবং আপনার যেই স্বাস্থ পরিবর্তন হয়েছে তার কথা। অথবা ১০ বার গভীর ভাবে শ্বাস নিন যাতে করে ফীলিঙ্স টা দূর হয়ে যায়। মোটকথা প্লান এর প্রতি স্ট্রিক্ট থাকতে হবে। তবেই সাফল্য মিলবে।

৩ থেকে ৯ মাস


এ সময় আপনি গভীরভাবে এবং পরিষ্কার শ্বাস নিতে পারবেন। আপনার কফ এর সম্ভাবনা রয়েছে খুবই কম। কফ সম্পর্কিত যত অন্যান্য রোগ ব্যাধির লক্ষণও ভালোর দিকে এ সময়। আপনার এনার্জিও দিন দিন বৃদ্ধি পাবে।

১ বছর পর


এখন আপনি ধরে নিতে পারেন যে, আপনি নিজেই নিজের চিকিৎসক। আপনার লক্ষে পৌঁছাতে সক্ষম হয়েছেন। আপনার হার্ট অ্যাটাক এর রিস্ক এখন অনেকটাই একজন নন smoker এর সমান। যা কিনা এক বছর আগে অনেক বেশি ছিলো।

৫ থেকে ১০ বছর পর


আপনার স্ট্রক এবং cervical ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা এখন একজন non smoker এর সমান। এবং mouth, throat, bladder,esophagus ক্যান্সার হওয়ার সম্ভবনা নেই বললেই চলে।

আপনি যদি একজন smoker এর সাথে তুলনা করেন, তাহলে বলবো যে আপনার lungs ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা একজন smoker এর চেয়ে অর্ধেক। এমনকি larynx(voice box) এবং pancreas ক্যান্সার হওয়ার ঝুঁকিও কম হয়ে যাবে।

১৫ বছর পর


Finally আপনার ১৫ বছর এর journey সফল হতে চলেছে।এ সময়টিতে আপনি হয়তো পুরনো সেই মাথা ব্যথা, dizzy, অনক্সিয়াস, অনুভব করবেন। কিন্তু ভয়ের কিছু নেই। কারন এটা স্বাভাবিক। আপনি এটি অতিক্রম করতে পারবেন খুব সহজেই।  মানুষ ইচ্ছে করলে পারেনা এমন কোনো কাজ পৃথিবীতে নেই। ধূমপানের নেশা ত্যাগ করা কোনো অসাধ্য কাজ নই। কারন পৃথিবীতে এরকম অনেক মানুষ খুজে পাবেন যারা কিনা ধুমপান ত্যাগ করেছে। তাহলে আপনি কেন পারবেন না। যদি এমনটি হতো যে, আজ পর্যন্ত পৃথিবীতে কেউ ধুমপান ত্যাগ করেনি তাহলে হয়তো বলতাম যে আপনিও পারবেন না। কখনো কি চেষ্টা করে দেখেছেন যে আপনার ধৈর্যশক্তি কতটুকু। করে দেখুন ভালো রেজাল্ট পাবেন।

আশা করি ধূমপান ছাড়ার উপকারিতা আপনার আয়ত্তে এসেছে।আমার এই ছোট্ট আর্টিকেল যদি আপনার একটু হলেও উপকার আসে। তাহলে আপনি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন। এবং তাদের লাইফ টাও পরিবর্তন করতে সাহায্য করুন। ধন্যবাদান্তে healthshocheton team.


ধূমপান ছাড়ার উপকারিতা - ধূমপান বন্ধ করার 20 মিনিট পর কি ঘটে ? What happens if quit smoking - healthshocheton ধূমপান ছাড়ার উপকারিতা - ধূমপান বন্ধ করার 20 মিনিট পর কি ঘটে ? What happens if quit smoking - healthshocheton Reviewed by Healthshocheton on July 01, 2019 Rating: 5

No comments:

Powered by Blogger.